পিএইচডি কি এবং পিএইচডি কেন করবেন? (বিস্তারিত)

আজকে আমরা জানব পিএইচডি কি এবং পিএইচডি কেন করবেন (বিস্তারিত) তথ্য এই আর্টিকেলে।

প্রথমেই আসি পিএইডি এর মেইন কনসেপ্ট গুলোতে,

পিএইচডি কি এবং পিএইচডি কেন করবেন?

পিএইডিএর পূর্ণরুপ হচ্ছে Doctor of Philosophy. এটা নিয়ে অনেক শিক্ষার্থীদের আগ্রহ থাকে। কিন্তু অনেকেই এই বিষয়ে জানেনা বা কেউই পিএইডি সম্পর্কে সঠিক তথ্য দিতে পারেন।

 

আর এর ফলে শিক্ষার্থীদের পিএইডি সম্পর্কে ধারণা না থাকাই স্বাভাবিক।

আজকের সেশনে আমরা পিএইডি কি? কেন পিএইডি করবেন? এবং পিএইডি সম্পর্কে  আপনাদের করা ৫ টি গুরুত্বপূর্ণ প্রশ্নের উত্তর দিয়ে বিস্তারিত ধারণা দিব পিএইডি সম্পর্কে।

প্রথমে জানব পিএইচডি কি এবং পিএইচডি কেন করবেন?

পিএইচডি কি?

ডক্টর অফ ফিলোসফি বা পিএইচডি একটি উচ্চ স্তরের শিক্ষাগত ডিগ্রী। বিজ্ঞান ও কলার বিভিন্ন ক্ষেত্রে গবেষণার জন্য স্নাতক উত্তীর্ণ গবেষককে এই ডিগ্রি প্রদান করা হয়ে থাকে।

 

এক্ষেত্রে সাধারণত একজন গবেষককে গবেষণার বিষয়ে অভিজ্ঞ কোন অধ্যাপকের অধীনে গবেষনা চালাতে হয়।

পিএইচডি কেন করবেন?

শুরুতেই বলেছি পিএইচডি হচ্ছে উচ্চ স্তরের শিক্ষাগত ডিগ্রী। পিএইচডি আপনাকে নিজের পছন্দের বিষয়টি নিয়ে আরও গভীর ও পড়াশোনা করার সুযোগ করে দেবে।

 

এর আগের ডিগ্রিগুলো থেকে এটার মূল পার্থক্য হলো আপনি এমন কোন রিসার্চ করতে পারবেন যা আগে কখনো করা হয় নি। নতুন তথ্য সংগ্রহ করবেন, নতুন সমাধান দাঁড় করাবেন এবং পছন্দের বিষয়ে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখার সুযোগ পাবেন।

পিএইচডি হল পড়াশোনার সর্বচ্চ লেভেল অতিক্রম করার ডিগ্রি। পিএইচডি ডিগ্রি অর্জন করলে গবেষণা, বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষাকতা ও বিভিন্ন পেশায় দ্রুত প্রোমশন পাওয়া যায়।

 

আরও পড়ুনঃ অনার্স সকল সাবজেক্ট এর ফ্রি পিডিএফ বই ও সাজেশন

আরও পড়ুনঃ মাস্টার্স সকল সাবজেক্ট এর ফ্রি পিডিএফ বই ও সাজেশন

 

এ ছাড়াও নানা পেশার উচ্চ পদের কর্মকর্তাগণ পিএইচডি ডিগ্রি নিয়ে থাকেন। আর এ ছাড়াও হাজারটা সুবিধা রয়েছে যা শুধু মাত্র আপনাকে পিএইচডি ডিগ্রিটাই এনে দিতে পারবে।

চলুন এবার আপনাদের কিছু প্রশ্নের উত্তর দেয়া যাকঃ

১) পিএইচডি ডিগ্রি পেতে কী প্রয়োজন?

উত্তরঃ আপনি যে বিষয়ে পি এইচ ডি করতে চান সেই বিষয়ে আপনাকে স্নাতক উত্তর ডিগ্রী (মাস্টার্স) থাকতে হবে। সাথে মাস্টার্সে পঞ্চান্ন শতাংশ নাম্বার থাকলে খুবই ভালো হয়।

 

পি এইচ ডি তে ভর্তি হতে হলে, আপনার যদি NET ( ন্যাশনাল এলিজিবিলিটি টেস্ট) বা SET (স্টেট এলিজিবিলিটি টেস্ট ) কোয়ালিফাই করা থাকে তাহলে আপনি সরাসরি ইন্টারভিউয়ের জন্য আবেদন করতে পারেন।

 

আরও পড়ুনঃ অনার্স সকল সাবজেক্ট এর ফ্রি পিডিএফ বই ও সাজেশন

আরও পড়ুনঃ মাস্টার্স সকল সাবজেক্ট এর ফ্রি পিডিএফ বই ও সাজেশন

 

যদি না থাকে তবে আপনাকে নির্দিষ্ট ইউনিভার্সিটির রিসার্চ এলিজিবিলিটি টেস্ট দিয়ে সেটা কোয়ালিফাই করতে হবে তারপর আপনি ইন্টারভিউ দিতে পারবেন।

২) পিএইচডি করার জন্য নির্দিষ্ট বয়স আছে?

উত্তরঃ নাহ নেই! উন্নত বিশ্বে প্রচুর লোক এই বয়সে পি,এইচ, ডি, করে। আসলে, সত্যি কথা বলতে, সেখানে বেশির ভাগ লোকই রিটায়ারমেন্ট এর কাছা কাছি যেয়ে পি,এইচ, ডি, করে।

৩) পিএইচডি ভর্তি হওয়ার পর নতুনদের কি করা উচিৎ?

উত্তরঃ ভর্তি হয়ে যাওয়ার পর থেকে ওই নাম পরিবর্তিত হয়ে “পায়ে হাতে ধরা”। কার? তা নিশ্চয়ই আর নতুন করে বলে দিতে হবে না।

 

এছাড়াও- নিজের চাওয়ার ব্যাপারে সৎ হোন, কী করছেন জেনে নিন, আপনার পিএইচডি উপদেষ্টার সাথে সুসম্পর্ক গড়ে তুলুন, সৃষ্টির আনন্দ খুঁজুন, পরিশ্রম করাকে শাস্তি ভাববেন না, মনের যত্ন নিন, ভালো মন্দ যাহাই আসুক সত্যেরে লও সহজে।

৪) মাস্টার্স না করেও কি পিএইচডি ডিগ্রির জন্য পড়াশুনো করা যায়?

উত্তরঃ হ্যাঁ, অনার্স ডিগ্রি থাকলে মাস্টার্স না করেও পিএইচডি ডিগ্রির জন্য পড়াশোনা* করা যায়।

নর্থ আমেরিকা’র পিএইচডি গবেষণার বেশ প্রাধান্য দেয়া হয়। যে কারণে পিএইচডি’তে যে কোর্সগুলোই করতে হয় যেগুলো একজনের গবেষণার সাথে সম্পর্কিত।

 

আরও পড়ুনঃ অনার্স সকল সাবজেক্ট এর ফ্রি পিডিএফ বই ও সাজেশন

আরও পড়ুনঃ মাস্টার্স সকল সাবজেক্ট এর ফ্রি পিডিএফ বই ও সাজেশন

 

আর প্রকৌশল সম্পর্কিত বিষয়ে পিএইচডি’র কোর্স কারিকুলাম ব্যাচেলরের কোর্স কারিকুলাম থেকে অনেকটাই ভিন্ন।

এ কারণে পিএইচডি’র পড়াশোনা বলতে গেলে নতুন করে শুরু করতে হয়। মাস্টার্স থাকলে পিএইচডি’র কোর্স রিকোয়ারমেন্ট (requirements) থেকে দুয়েকটা কোর্স কম করা যায় বটে, তবে তাতে বিশেষ লাভ হয় না।

পিএইচডি কি এবং পিএইচডি কেন করবেন? –

তবে এটা শুধু নর্থ আমেরিকা, বিশেষত যুক্তরাষ্ট্রের বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর জন্য প্রযোজ্য।

কিছু কানাডিয়ান বিশ্ববিদ্যালয় আছে যেখানে মাস্টার্স থাকলে এডমিশন পেতে সুবিধা হয়। আর ইউরোপে যতদূর জানি পিএইচডি করতে মাস্টার্স থাকতেই হয়।

 

সুতরাং উত্তরটা হচ্ছে ব্যাপারটা নির্ভর করে কোন দেশের বিশ্ববিদ্যালয়ের পিএইচডি প্রোগ্রাম তার উপরে।

অন্ততঃ ইঞ্জিনিয়ারিং বিষয়ের ক্ষেত্রে, মাস্টার্স থাকা না থাকা কোন পার্থক্য তৈরি করে না।

৫) ডিগ্রী পাস করার পর কি পিএইচডি করা যায়?

উত্তরঃ পি.এইচ.ডি মানে হল নিজের একটা রিসার্চ পেপার তৈরী করা।

সেটি কখনো অর্ধেক জ্ঞান নিয়ে করা সম্ভব নয়। এর জন‍্য দরকার অধ‍্যাবসায়। নূন‍্যতম যোগ‍্যতা মাস্টার্স লাগবেই। আর ভারতে সম্ভবত মাস্টার্সে ৫৫% নম্বর লাগে।

পিএইচডি কি এবং পিএইচডি কেন করবেন? –

বোনাস প্রশ্নঃ

পিএইচডি কি খুব ব্যয়বহুল? পিএইচডি করতে কত টাকা খরচ হয়?

উত্তরঃ আপনি কোথা থেকে পিএইচডি করছেন প্রাথমিকভাবে তার ওপর নির্ভর করে ব‍্যয়ের পরিমাণ। আপনি স্কলারশিপ পেয়েছেন কিনা সেটাও একটা বিষয়।

 

আরও পড়ুনঃ অনার্স সকল সাবজেক্ট এর ফ্রি পিডিএফ বই ও সাজেশন

আরও পড়ুনঃ মাস্টার্স সকল সাবজেক্ট এর ফ্রি পিডিএফ বই ও সাজেশন

 

আমেরিকা যুক্তরাষ্ট্র ছাড়া অন্য কোথাও উচ্চশিক্ষার হালচাল আমার তেমন জানা নেই। আমেরিকায় পিএইচডি করতে চাইলে খুব কম খরচেও করা যায়।

 

উক্ত বিষয় সর্ম্পকে যেকোন প্রশ্ন থাকলে কমেন্ট করতে পারেন।

আমাদের সাথে ইউটিউব চ্যানেলে যুক্ত হতে এখানে ক্লিক করুন এবং আমাদের সাথে ফেইজবুক পেইজে যুক্ত হতে এখানে ক্লিক করুন

গুরুত্বপূর্ণ আপডেট ও তথ্য পেতে আমাদের ওয়েবসাইটে ভিজিট করুন।

Check Also

পিএইচপি প্রোগ্রামিং ল্যাংগুয়েজ

পিএইচপি প্রোগ্রামিং ল্যাংগুয়েজ (ইন্টারভিউ প্রশ্নোত্তর) পর্বঃ ১

আজকে আমরা জানতে পারবো পিএইচপি প্রোগ্রামিং ল্যাংগুয়েজ সম্পর্কে এবং এর প্রশ্নোত্তর। প্রিয় পাঠক, আপনারা পিএইচপি …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *