স্বাধীন বাংলাদেশের অভ্যুদয়ের ইতিহাস(অধ্যায়-৪)অতিসংক্ষিপ্ত

স্বাধীন বাংলাদেশের অভ্যুদয়ের ইতিহাস(অধ্যায়-৪)অতিসংক্ষিপ্ত প্রশ্নোত্তর ও সাজেশন সম্পর্কে আজকে বিস্তারিত সকল কিছু জানতে পারবেন। সুতরাং সম্পূর্ণ আর্টিকেলটি মনোযোগ দিয়ে পড়ুন। অনার্স ১ম বর্ষের যেকোন বিভাগের সাজেশন পেতে জাগোরিকের সাথে থাকুন।

অনার্স প্রথম পর্ব
বিভাগ: স্বাধীন বাংলাদেশের অভ্যুদয়ের ইতিহাস
বিষয়: পাকিস্তান : ভাষা আন্দোলন ও বাঙ্গালির আত্মপরিচয় প্রতিষ্ঠা
বিষয় কোড: ২১১৫০১

ক-বিভাগঃ অতিসংক্ষিপ্ত প্রশ্নের উত্তর

১. নবাব স্যার সলিমুল্লাহ ‘প্রাদেশিক মুসলিম সংঘ’ প্রতিষ্ঠা করেন কত সালে?
উত্তর : নবাব স্যার সলিমুল্লাহ ‘প্রাদেশিক মুসলিম সংঘ’ প্রতিষ্ঠা করেন ১৯০৫ সালের ১৬ অক্টোবর ।

২. ‘মুসলিম লীগ’ সর্বপ্রথম কোথায় গঠিত হয়?
উত্তর : ‘মুসলিম লীগ’ সর্বপ্রথম ঢাকার শাহবাগে নবাব সলিমুল্লাহর বাগানবাড়িতে গঠিত হয় ।

৩. মুসলিম লীগের প্রকৃত নাম কী ছিল?
উত্তর : মুসলিম লীগের প্রকৃত নাম নিখিল ভারত মুসলিম লীগ ছিল।

৪. কার উদ্যোগে মুসলিম লীগ গঠিত হয়?
উত্তর : নবাব সলিমুল্লাহর উদ্যোগে মুসলিম লীগ গঠিত হয়।

৫. মুসলিম লীগ গঠিত হয় কখন?
উত্তর : ১৯০৬ সালের ৩০ ডিসেম্বর মুসলিম লীগ গঠিত হয়।

৬. কে মুসলিম লীগের প্রথম সভাপতি ছিলেন?
উত্তর : আগা মুহাম্মদ খান মুসলিম লীগের প্রথম সভাপতি ছিলেন।

৭. ১৯০৬ সালে ‘মুসলিম লীগ’ গঠিত হয় কোন ঘটনার প্রেক্ষিতে?
উত্তর : ১৯০৬ সালে ‘মুসলিম লীগ’ গঠিত হয় ১৯০৫ সালের বঙ্গভঙ্গের প্রেক্ষিতে ।

৮. কারা মুসলিম লীগের প্রথম যুগ্মসম্পাদক ছিলেন?
উত্তর : নবাব মহসিন উল মুলক ও নবাব ভিকার উল মুলক মুসলিম লীগের প্রথম যুগ্মসম্পাদক ছিলেন।

৯. কত সালে টাঙ্গাইলে উপনির্বাচনে মুসলিম লীগ প্রার্থীর ভরাডুবি হয়েছিল?
উত্তর : ১৯৪৯ সালে টাঙ্গাইলের উপনির্বাচনে মুসলিম লীগ প্রার্থীর ভরাডুবি হয়েছিল ।

১০, পাকিস্তানের প্রথম শক্তিশালী বিরোধী রাজনৈতিক দলের নাম কী ছিল?
উত্তর : পাকিস্তানের প্রথম শক্তিশালী বিরোধী রাজনৈতিক দলের নাম ছিল আওয়ামী মুসলিম লীগ।

১১. আওয়ামী মুসলিম লীগ কত সালে প্রতিষ্ঠিত হয়?
উত্তর : আওয়ামী মুসলিম লীগ ১৯৪৯ সালের ২৩ জুন গঠিত হয় ।

১২. আওয়ামী মুসলিম লীগের প্রথম জনসভা অনুষ্ঠিত হয় কখন?
উত্তর : আওয়ামী মুসলিম লীগের প্রথম জনসভা অনুষ্ঠিত হয় ১৯৪৯ সালের ২৪ জুন।

১৩. রোজগার্ডেন কোথায় অবস্থিত?
উত্তর : ঢাকার টিকাটুলির কে. এম. দাস লেনে রোজগার্ডেন অবস্থিত।

১৪. আওয়ামী মুসলিম লীগ গঠিত হয়েছিল কোথায়?
উত্তর : আওয়ামী মুসলিম লীগ গঠিত হয়েছিল ঢাকার টিকাটুলির কে. এম. দাস লেনে ।

১৫. কে আওয়ামী মুসলিম লীগের প্রথম সাধারণ সম্পাদক ছিলেন?
উত্তর : শামসুল হক আওয়ামী মুসলিম লীগের প্রথম সাধারণ সম্পাদক ছিলেন।

স্বাধীন বাংলাদেশের অভ্যুদয়ের ইতিহাস(অধ্যায়-৪)অতিসংক্ষিপ্ত *

১৬. আওয়ামী মুসলিম লীগের প্রথম সভাপতি কে ছিলেন?
উত্তর : মওলানা আবদুল হামিদ খান ভাসানী আওয়ামী মুসলিম লীগের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি ছিলেন।

১৭. শেখ মুজিবুর রহমান কত সালে আওয়ামী মুসলিম লীগের সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হন?
উত্তর : শেখ মুজিবুর রহমান ১৯৫৩ সালে আওয়ামী মুসলিম লীগের সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হন ।

১৮. কে আওয়ামী লীগের প্রাণপুরুষ ছিলেন?
উত্তর : শেখ মুজিবুর রহমান আওয়ামী লীগের প্রাণপুরুষ ছিলেন।

১৯. কে আওয়ামী মুসলিম লীগের প্রথম যুগ্মসম্পাদক ছিলেন?
উত্তর : শেখ মুজিবুর রহমান আওয়ামী মুসলিম লীগের প্রথম যুগ্মসম্পাদক ছিলেন।

২০. আওয়ামী মুসলিম লীগ থেকে ‘মুসলিম’ শব্দটি বাদ দেওয়া হয় কখন?
উত্তর : আওয়ামী মুসলিম লীগ থেকে ‘মুসলিম’ শব্দটি বাদ দেওয়া হয় ১৯৫৫ সালের ২৩ অক্টোবর ।

২১. ‘আওয়ামী’ অর্থ কী?
উত্তর : আওয়ামী অর্থ ‘আমজনতা’ ।

২২. কত সালে বঙ্গবন্ধু আওয়ামী লীগের সভাপতি নির্বাচিত হন?
উত্তর : ১৯৬৬ সালে বঙ্গবন্ধু আওয়ামী লীগের সভাপতি নির্বাচিত হন

২৩. কে পূর্ববাংলা ছাত্রলীগের প্রথম সভাপতি ছিলেন?
উত্তর : দবিরুল ইসলাম পূর্ববাংলা ছাত্রলীগের প্রথম সভাপতি ছিলেন।

২৪. কত সালে পূর্ববাংলা ছাত্রলীগ গঠিত হয়?
উত্তর : ১৯৪৮ সালের ৪ জানুয়ারি পূর্বাংলা ছাত্রলীগ গঠিত হয়

২৫. এ. কে. ফজলুল হক রচিত গ্রন্থের নাম কী?
উত্তর : এ. কে. ফজলুল হক রচিত গ্রন্থের নাম ‘ইবহমধষ ঞড়ফধু’ (১৯৪৪).



২৬. ন্যাশনাল আওয়ামী পার্টি (ন্যাপ) গঠিত হয় কত সালের কত তারিখে?
উত্তর : ন্যাশনাল আওয়ামী পার্টি (ন্যাপ) গঠিত হয় ১৯৫৭ সালের ২৬ জুলাই।

২৭. ভাষা আন্দোলনের সূত্রপাত হয় কত সালে?
উত্তর : ভাষা আন্দোলনের সূত্রপাত হয় ১৯৪৭ সালের সেপ্টেম্বর মাসে।

২৮. তমদ্দুন মজলিশ কী?
উত্তর : তমদ্দুন মজলিশ একটি সাংস্কৃতিক সংগঠন।

২৯. তমদ্দুন মজলিশের প্রথম ৩ জন সদস্যের নাম উল্লেখ কর।
উত্তর : তমদ্দুন মজলিশের প্রথম ৩ জন সদস্য হলেন ১. অধ্যাপক আবুল কাশেম, ২. সৈয়দ নজরুল ইসলাম ও ৩. শামসুল হক ।

৩০. কার নেতৃত্বে তমদ্দুন মজলিশ গঠিত হয়?
উত্তর : অধ্যাপক আবুল কাশেমের নেতৃত্বে তমদ্দুন মজলিশ গঠিত হয়।

স্বাধীন বাংলাদেশের অভ্যুদয়ের ইতিহাস(অধ্যায়-৪)অতিসংক্ষিপ্ত *

৩১. করে তমদ্দুন মজলিশ গঠিত হয়?
উত্তর : ১৯৪৭ সালের ২ সেপ্টেম্বর তমদ্দুন মজলিশ গঠিত হয়।

৩২. ‘পাকিস্তানের রাষ্ট্রভাষা বাংলা না উর্দু’ শীর্ষক নিবন্ধটি রচনা করেন কে?
উত্তর : ‘পাকিস্তানের রাষ্ট্রভাষা বাংলা না উর্দু’ শীর্ষক নিবন্ধটি রচনা করেন ড. মুহম্মদ শহীদুল্লাহ ।

৩৩. রাষ্ট্রভাষা সংগ্রাম পরিষদ কবে গঠিত হয়?
উত্তর: রাষ্ট্রভাষা সংগ্রাম পরিষদ’ ১৯৪৭ সালের ডিসেম্বর মাসে গঠিত হয় ।

৩৪. ‘রাষ্ট্রভাষা সংগ্রাম পরিষদ’ কার নেতৃত্বে গঠিত হয়? উত্তর ‘রাষ্ট্রভাষা সংগ্রাম পরিষদ’ অধ্যাপক নুরুল হক ভুঁইয়ার নেতৃত্বে গঠিত হয়।

৩৫. রাষ্ট্রভাষা বাংলার দাবিতে সর্বপ্রথম হরতাল পালিত হয় কবে?
উত্তর : রাষ্ট্রভাষা বাংলার দাবিতে সর্বপ্রথম হরতাল পালিত হয় ১৯৪৮ সালের ৪ জানুয়ারি।

৩৬. “উর্দু এবং উর্দুই হবে পাকিস্তানের একমাত্র রাষ্ট্রভাষা।”— এটি কার উক্তি?
উত্তর : “উর্দু এবং উর্দুই হবে পাকিস্তানের একমাত্র রাষ্ট্রভাষা।”— এটি পাকিস্তানের গভর্নর জেনারেল মুহাম্মদ আলী জিন্নাহর উক্তি।

স্বাধীন বাংলাদেশের অভ্যুদয়ের ইতিহাস(অধ্যায়-৪)অতিসংক্ষিপ্ত *

৩৭. বাংলার ছাত্রসমাজ ঢাকায় ‘রাষ্ট্রভাষা দিবস’ পালন করে কখন?

উত্তর : বাংলার ছাত্রসমাজ ঢাকায় ‘রাষ্ট্রভাষা দিবস’ পালন করে ১৯৪৮ সালের ১১ মার্চ। ‘দ্বিতীয় রাষ্ট্রভাষা সংগ্রাম পরিষদ’ কখন গঠিত হয়? উত্তর : ‘দ্বিতীয় রাষ্ট্রভাষা সংগ্রাম পরিষদ’ ১৯৪৮ সালের ২ মার্চ গঠিত হয় ।

৩৮. কত সালে জিন্নাহ রেসকোর্স ময়দানে উর্দুকে পাকিস্তানের একমাত্র রাষ্ট্রভাষা ঘোষণা দেন?
উত্তর : ১৯৪৮ সালের ২১ মার্চ জিন্নাহ রেসকোর্স ময়দানে উর্দুকে পাকিস্তানের একমাত্র রাষ্ট্রভাষা ঘোষণা দেন ।

৩৯. “পাকিস্তানের সংহতির প্রয়োজনে তোমাদের মাতৃভাষাকে ত্যাগ করতে হবে।”— উক্তিটি কে কাকে বলেন?
উত্তর : “পাকিস্তানের সংহতির প্রয়োজনে তোমাদের মাতৃভাষাকে ত্যাগ করতে হবে।”- উক্তিটি মুহাম্মদ আলী জিন্নাহ শেখ মুজিবুর রহমানকে উদ্দেশ্য করে বলেন।

৪০. ১৯৪৮ সালে পূর্ববাংলার মুখ্যমন্ত্রী কে ছিলেন?
উত্তর : ১৯৪৮ সালে পূর্ববাংলার মুখ্যমন্ত্রী ছিলেন খাজা নাজিমুদ্দিন।

৪১. ‘রাষ্ট্রভাষা বাংলা চাই’ শ্লোগানটি কাদের ছিল?
উত্তর : ‘রাষ্ট্রভাষা বাংলা চাই’ শ্লোগানটি পূর্ববাংলার আমজনতার ছিল।

৪২. ভাষা আন্দোলন চলাকালে পূর্ববাংলার মুখ্যমন্ত্রী কে ছিলেন?
উত্তর : ভাষা আন্দোলন চলাকালে পূর্ববাংলার মুখ্যমন্ত্রী ছিলেন নূরুল আমীন ।

৪৩. ‘সর্বদলীয় কেন্দ্রীয় রাষ্ট্রভাষা সংগ্রাম পরিষদ’ কখন গঠিত হয়?
উত্তর : ‘সর্বদলীয় কেন্দ্রীয় রাষ্ট্রভাষা সংগ্রাম পরিষদ’ ১৯৫২ সালের ৩১ জানুয়ারি গঠিত হয়।

৪৪. সর্বদলীয় রাষ্ট্রভাষা সংগ্রাম পরিষদের আহ্বায়ক কে ছিলেন?
উত্তর : সর্বদলীয় রাষ্ট্রভাষা সংগ্রাম পরিষদের আহ্বায়ক ছিলেন কাজী গোলাম মাহবুব।

৪৫. ১৯৫২ সালের ২১ ফেব্রুয়ারি বাংলা তারিখ কত ছিল?
উত্তর : ১৯৫২ সালের ২১ ফেব্রুয়ারি বাংলা তারিখ ছিল ৮ ফাল্গুন ।

স্বাধীন বাংলাদেশের অভ্যুদয়ের ইতিহাস(অধ্যায়-৪)অতিসংক্ষিপ্ত *

৪৬. ১৯৫২ সালের ২১ ফেব্রুয়ারি কী বার ছিল?
উত্তর : ১৯৫২ সালের ২১ ফেব্রুয়ারি বৃহস্পতিবার ছিল ।

৪৭. ১৯৫২ সালের ২১ ফেব্রুয়ারি ভাষা আন্দোলনের কেন্দ্রস্থল কোথায় ছিল?
উত্তর : ১৯৫২ সালের ২১ ফেব্রুয়ারি ভাষা আন্দোলনের কেন্দ্রস্থল ছিল ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হোস্টেল ।

৪৮. প্রথম বাংলাদেশের শহিদ মিনার উদ্বোধন করেন কে ও কখন?
উত্তর : প্রথম বাংলাদেশের শহিদ মিনার উদ্বোধন করেন শহিদ শফিউরের পিতা মতিউর রহমান, ১৯৫২ সালের ২৪ ফেব্রুয়ারি।

৪৯.প্রথম শহিদ মিনার কখন নির্মিত হয়?
উত্তর : প্রথম শহিদ মিনার ১৯৫২ সালের ২৩ ফেব্রুয়ারি
নির্মিত হয় ।

৫০. একুশের প্রথম কবিতা ‘কাঁদতে আসিনি ফাঁসির দাবি নিয়ে এসেছি’ এর রচয়িতা কে ছিলেন?
উত্তর : একুশের প্রথম কবিতা ‘কাঁদতে আসিনি ফাঁসির দাবি নিয়ে এসেছি’ এর রচয়িতা ছিলেন মাহবুব উল আলম।

উক্ত বিষয় সম্পর্কে কিছু জানার থাকলে কমেন্ট করতে পারেন।
আমাদের সাথে ইউটিউব চ্যানেলে যুক্ত হতে এখানে ক্লিক করুন এবং আমাদের সাথে ফেইজবুক পেইজে যুক্ত হতে এখানে ক্লিক করুন
গুরুত্বপূর্ণ আপডেট ও তথ্য পেতে আমাদের ওয়েবসাইটে ভিজিট করুন।

Check Also

স্বাধীন বাংলাদেশের অভ্যুদয়ের ইতিহাস (১০ম-সংক্ষিপ্ত)

স্বাধীন বাংলাদেশের অভ্যুদয়ের ইতিহাস (১০ম-সংক্ষিপ্ত)

স্বাধীন বাংলাদেশের অভ্যুদয়ের ইতিহাস (১০ম-সংক্ষিপ্ত) প্রশ্নোত্তর ও সাজেশন সম্পর্কে আজকে বিস্তারিত সকল কিছু জানতে পারবেন। …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *